করোনায় ঘরোয়াভাবে পালন হচ্ছে ফুল বিজু উৎসব

85
নদীতে ফুল ভাসান ক্ষৃদ্র নৃ-গোষ্ঠীর তরুণীরা।

আরিফুল ইসলাম মহিন, পানছড়ি (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি >>>
আজ পাহাড়ের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির ফুল বিজু। ঐতিহ্যবাহি বৈসাবিন উপজাতীয়দের প্রধান উৎসব। করোনা ভাইরাসের পাদুর্ভাবের কারণে প্রতি বছরের ন্যায় ব্যাপক আয়োজনে আজ দিনটি উদযাপন করতে না পারলেও থেমে নেই ধর্মীয় পূজা পার্বণ।
বিশেষ করে আজকের এই দিনে উপজাতি তরুণ-তরুণীরা ছড়া-নদীর পানির ধারে ধর্মীয় রীতি অনুসারে ফুল পূজা, ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে দিনটির সুচনা করে। বিশ্বব্যাপি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ভয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ব্যাপক আয়োজনে ফুল বিজু করতে না পারলেও পরিবারভিত্তিক নদীতে গিয়ে পালন করেছে এই ধর্মীয় উৎসব।

নদীতে ফুল ভাসাতে প্রস্তুতি পাহাড়ের তরুণীদের।

দিপ শিখা চাকমা বলেন, আমরা প্রতিবছর আজকের দিনে ছোট বড় সবাই মিলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ফুল ভাসানোর জন্য চেঙ্গী নদীতে জমায়েত হতাম। তবে এবারের বিষয়টা ভিন্ন। মহামারী করোনার হাত থেকে নিজে ও সমাজকে বাঁচাতে এককভাবেই ক্ষুদ্র আয়োজনে বিজু উৎসব পালন করে যাচ্ছি।
সানন্দা চাকমা, অরুপ ময় চাকমা, ইটালী চাকমা শেফালীকা মারমাসহ কয়েকজন তরুণ-তরুণী দৈনিক চট্টগ্রামের এই প্রতিনিধিকে জানান, প্রতিবছরের ন্যায় এই বছরও পালন করা হচ্ছে উপজাতিদের ঐতিহাসিক বৈসাবিন। আমাদের ব্যাপক আয়োজন নেই, সেক্ষেত্রে আনন্দটাও আগের মতো নেই। তবে আমাদের অনুরোধ সবাই যেনো নিজের ভালোর কথা চিন্তা করে সকলেই ঘরে অবস্থান করে বিজু পালন করেন।

ডিসি/এসআইকে/এসএজে