করোনায় ৭০ জনকে মন দেয়া সেই প্রেমিক লর্ডের মৃত্যু

83

দৈনিক চট্টগ্রাম ডেস্ক >>> 
করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন বর্ণিল জীবনের অধিকারী বৃটেনের সেই প্রেমিক লর্ড। তিনি হলেন সপ্তম মার্কস ভিসকাউন্ট ওয়েমাউথ আলেকজান্ডার থিন। যিনি বাগদত্তার বাইরেও ৭০ জন নারীকে বন্টন করেছেন তার মন। তাদের সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছেন, নিজের বিশাল সাম্রাজ্য তাদের আবাসনের ব্যবস্থাও করে দিয়েছেন। বিখ্যাত লংলিয়াট সাফারি পার্কের মালিক লর্ড বাথ ছিলেন একাধারে বর্ণিল চরিত্রের অধিকারী, খেয়ালী, প্রেমিক, এরোটিক চিত্র এবং পশুপ্রেমী। ৮৭ বছর বয়সী লর্ডের শরীরে করোনার লক্ষণ প্রকাশের পর ২৮ মার্চ তাকে বার্থের রয়েল ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন গত রবিবার (৫ এপ্রিল)।
লংলিয়াট সাফারি পার্ক এক বিবৃতিতে বলেছে, আমরা অত্যন্ত দুঃখের সাথে ঘোষণা করছি- লর্ড বাথ ৮৭ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন।আলেকজান্ডার থিন ছিলেন বৃটেনের অন্যতম বর্ণময় চরিত্র। লর্ড বাথ আভিজাত্যবোধ, দৃষ্টিনন্দনবোধ ও জাঁকজমকপূর্ণ পোশাকের জন্য খ্যাত ছিলেন। বিশেষ করে কেট হাম্বলের এনিমেল পার্ক শোর এক নিয়মিত চরিত্র ছিলেন তিনি। লর্ড বাথ তার নিজস্ব টিভি শো, এনিমেল পার্কেও অভিনয় করেছিলেন। তার মালিকানাধীন লংলিয়াট জনপ্রিয় বিবিসি শো এনিমেল পার্কের অবস্থান হিসাবে সুপরিচিত, যা কেট হাম্বল ও বেন ফোগল উপস্থাপন করেছেন। কেট হাম্বল টুইট করে বলেছেন- ‘প্রত্যেকে তাকে অভিনব হিসাবে বর্ণনা করবে। তিনি ছিলেন মহিমান্বিত, দয়ালু ও মজাদার।‘
লর্ড বাথ ইটন ও অক্সফোর্ড থেকে পড়াশোনা করেছেন। তিনি অক্সফোর্ডের বিখ্যাত বুলিংডন ক্লাবের সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৬৯ সালে এমা গেইলকে বিয়ে করেন। তাদের দুইটি সন্তান রয়েছে। তবে তিনি ৭০ জন নারীর সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন। যাদের বেশিরভাগকেই ওয়ারমিনিস্টারের লংলিয়াটের জমিতে নির্মিত কুটিরে বসবাসের সুযোগ করে দিয়েছিলেন। এর মধ্যে একজন শ্রীলঙ্কান মডেলও রয়েছেন।
থিন একজন চিত্রশিল্পীও ছিলেন। যৌবনে প্যারিসে শিল্পের পড়াশোনা করেছিলেন এবং সেখানে তার একটি স্টুডিও ছিল। তিনি তার নিজের বাড়ির দেয়ালটি সজ্জ্বিত করেছিলেন প্রেমমূলক ম্যূরাল দিয়ে। গ্রামাঞ্চলের শোভা বাড়াতে তার পার্কে বেশকিছু কামসূত্রের দৃশ্য অঙ্কন ও স্থাপন করেন। কামসূত্রের প্রতি তার বেশ অনুরাগ ছিল।
তবে তার ছেলে সিওলিন থিন ভিসকাউন্ট ওয়েমাউথ উপাধিতে ভূষিত হওয়ার পর ২০১০ সালে এস্টেট এবং সাফারি পার্কের পরিচালনা ভার পেলে সংস্কারের উদ্যোগ নেন। তারই প্রেক্ষিতে পার্ক থেকে বেশিরভাগ যৌন উদ্দিপক চিত্র সরিয়ে ফেলেন তিনি। সে জন্য তিনি তার ছেলের বিয়েতে অংশ নেননি।
লর্ড বাথের বিশাল সম্পদ ছিল। তার ১৫৭ মিলিয়ন ডলারের সম্পদ নিয়ে সানডে টাইমস-এর রিচ তালিকায় ৩৫৯ তম স্থানে স্থান পেয়েছিলেন। লর্ড বাথ রাজনীতিতে জড়িতে ছিলেন। ওয়েসেক্স আঞ্চলিকতাবাদী দলের প্রতিনিধিত্ব ১৯৭৯ সালের প্রথম ইউরোপিয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেন। ১৯৯২ সালে মার্কুইস আসনটি উত্তরাধিকারসূত্রে পান। হাউস অফ লর্ডসে লিবারেল ডেমোক্র্যাট সদস্য হিসাবে বসেন। তবে শ্রম সংস্কারের পর বেশিরভাগ বংশগত প্রতিনিধিকে বাদ দিলে তিনি তার আসনটি হারান।

ডিসি/এসআইকে/এসএজে