ভাইরাসের নাম কেন করোনা?

49

দৈনিক চট্টগ্রাম ডেস্ক >>>
বর্তমানে বিশ্বজুড়ে আতঙ্কের অন্যতম কারণ করোনা ভাইরাস। চীনের উহানে ভাইরাসটির সংক্রমণ শুরু হওয়ার থেকে এখনও পর্যন্ত চার সহস্রাধিক মানুষ এতে সংক্রমিত হয়েছেন এবং মারা গেছেন শতাধিক। মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার শুরু থেকেই সাধারণের মুখ থেকে বারবার যে প্রশ্নটি উচ্চারিত হচ্ছে সেটি হলো এই ভাইরাসের নাম করোনা ভাইরাস কেন? চলুন এই প্রশ্নের উত্তর খোঁজা যাক।
করোনা ভাইরাস বলতে এক গোত্রের অনেকগুলো ভাইরাসকে বোঝায়, যা মূলত প্রাণীদের মধ্যে পাওয়া যায়। বার্ড ফ্লু তথা সার্স ভাইরাসও এই গোত্রের। হিউম্যান করোনা ভাইরাস এক ধরনের জেনেটিক রোগ এবং এই সংক্রমণটি প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। ভাইরাসটির অনেক রকম প্রজাতি আছে। কিন্তু, এখন পর্যন্ত বিজ্ঞানীরা প্রায় ছয়টি করোনা ভাইরাস সনাক্ত করেছেন, যা মানুষকে প্রভাবিত করে এবং হালকা থেকে মারাত্মক লক্ষণ সৃষ্টি করে।
হিউম্যান করোনা ভাইরাসের প্রথম খোঁজ পাওয়া যায় ১৯৬০ সালে একজন রোগীর মধ্যে, যিনি সর্দিতে ভুগছিলেন। করোনা ভাইরাস নামটি এসেছে এর আকৃতির ওপর ভিত্তি করে। ইলেকট্রন মাইক্রোস্কোপে এই ভাইরাসটি ক্রাউন বা মুকুটের মতো দেখতে হওয়ায় এর নাম হয়েছে ‘করোনা’।
মানুষ প্রায়ই তাদের জীবনের কোনো না কোনো সময়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়, সুস্থ হয়ে ওঠে এবং কয়েক মাস পরে আবার সংক্রমিত হতে পারে। মানুষের দেহে ছয় ধরনের করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে। এগুলো হলো, আলফা করোনা ভাইরাস (NL63 এবং 229E), বিটা করোনা ভাইরাস (HKU1 ও OC43) এবং বাকি দুটি সার্স ও মার্স তাদের প্রাণঘাতী লক্ষণগুলোর জন্য পরিচিত।

ডিসি/এসআইকে/রকি